সহকারী পরিচালকের বউ হলেন পরীমনি

img

বিনোদন ডেস্ক:

গোপনে বিয়ে সারলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের গ্ল্যামার-কন্যা পরীমনি। তার স্বামীর নাম কামরুজ্জামান রনি। তিনি ছোটপর্দার নির্মাতা। গত ১০ মার্চ রাতে রাজারবাগ কাজী অফিসে চুপিসারে বিয়ে করেন তারা। ১০ দিন বাদে বৃহস্পতিবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর প্রকাশ করেন নবদম্পতি।

গত ১০ মার্চ রাজধানীর রাজারবাগের একটি কাজী অফিসে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

পরীমনি বলেন, হঠাৎ করেই আমরা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।  সবকিছু আসলে হঠাৎ করেই হয়ে গেছে।  কাউকে জানানোর সুযোগ হয়নি।

এখন ‘অ্যাডভেঞ্জার অব সুন্দরবন’ সিনেমার শুটিংয়ে মোংলাবন্দরের পাশে করমজলে আছি।  রনিও এখানে।  সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

এর আগে সাংবাদিক তামিম হাসানের সঙ্গে পরীমনির বাগদান হলেও বিয়ের আগেই তা ভেঙে যায়।

এর কারণ প্রসঙ্গে সে সময় পরীমনি বলেছিলেন, ‘আমার কাজকে যদি কেউ অসম্মান করে, সেখানে আমি কখনোই একচুল আপস করব না। লুকোচুরি ছাড়া ঢাকঢোল পিটিয়েই তামিমের সঙ্গে প্রেম করেছিলাম, হাতে তার দেয়া আংটিও পরেছিলাম। কারণ এখানে সম্মানের জায়গা ছিল। একইভাবে আমার কাজও সম্মানের জায়গা। সেটা যে না বোঝে তার সঙ্গে জীবন কাটানো অসম্ভব।’

শুধু তাই নয়, অভিনয়ে আসার আগে পরীমনির বিয়ে হয়েছিল বলেও গুঞ্জন রয়েছে। সে বিয়ের একটি কাবিননামাও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল। সেই কাবিননামায় দেখা যায়, যশোরের কেশবপুরের ছেলে ফেরদৌস কবীর সৌরভের সঙ্গে ২০১২ সালের ২৮ এপ্রিল পরীমনির বিয়ে হয়েছিল। সৌরভ পেশায় একজন ফুটবলার। তার পরিবারের সম্মতিতেই পরবর্তীতে পরীমনি অভিনয় জগতে এসেছিলেন।

উল্লেখ্য, হৃদি হক পরিচালিত ‘১৯৭১: সেই সব দিন’ সিনেমায় সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন কামরুজ্জামান রনি।  ওই সিনেমায় কেন্দ্রীয় একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন পরীমনি।  আর সে সূত্র ধরেই রনির সঙ্গে তার পরিচয় এবং পরে পরিণয়। সেখান থেকেই মূলত তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।  অবশেষে তা বিয়েতে গড়াল।