ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাত-বাহরাইনের ‘চুক্তি’ সই

img

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মুসলিম বিশ্বের সমালোচনা উপেক্ষা করে দখলদার ইসরায়েলের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপনে চুক্তি সই করলো সংযুক্ত আরব আমিরত ও বাহরাইন। মার্কিন প্রেসিডেন্টের দপ্তর হোয়াইট হাউসে বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাতে এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। খবর রয়টার্সের।

আমিরাতের পক্ষে চুক্তিতে সই করেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন জায়েদ আলে নাহিয়ান এবং বাহরাইনের পক্ষে ছিলেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিন রাশেদ আল যিয়ানি। আর ইসরায়েল পক্ষে চুক্তিতে সই করেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

ফিলিস্তিনের প্রতিবাদ উপেক্ষা করে ইসরায়েলের সঙ্গে চুক্তিতে সই করল দুই মুসলিম দেশ। এ নিয়ে মোট চারটি আরব দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপন করল।

আরব আমিরাত ও বাহরাইন হচ্ছে সৌদি আরবের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ দু’টি দেশ। অবশ্য এখন পর্যন্ত সৌদি আরবের পক্ষ থেকে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণা দেওয়া হয়নি। বরং তারা ফিলিস্তিন ইস্যুতে শান্তিপূর্ণ সমাধান চায় বলে জানিয়েছে।

গত ১৩ আগস্ট ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাতের স্বাভাবিক সম্পর্কে ঐক্যমতের বিষয়ে ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপরই ফিলিস্তিন আমিরাতকে বিশ্বাসঘাতক হিসেবে আখ্যায়িত করে। কয়েকটি মুসলিম দেশ এর প্রতিবাদ জানায়। এই ঘটনার একমাসের মধ্যেই হোয়াইট হাউস থেকে ঘোষণা আসে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে প্রস্তুত বাহরাইন। এত অল্প সময়ের মধ্যে দুই আরব দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণায় বিস্মিত মুসলিম বিশ্ব।