কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহারে চোখে দেখতে পাচ্ছেন না মিষ্টি মারিয়া

img

বিনোদন ডেস্ক:

‘আমি চোখ খুলতে পারছি না। লেন্স খোলার সময় আমার হয়তো চোখের কর্ণিয়ার প্রথম লেয়ার ফেটে গেছে। যে কারণে নাকি দেখতে পারছি না। ডাক্তার আমাদের এটাই জানিয়েছেন।’ কান্নাজড়িত কণ্ঠে কথাগুলো বলছিলেন দুর্ঘটনার শিকার হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসা ছোট ও রুপালি পর্দার অভিনেত্রী মিষ্টি মারিয়া। 

সাধারণত চোখের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্যই অনেক সময় অভিনয়শিল্পীরা কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এই কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহারের কারণে চোখে দেখতে পারছেন না অভিনেত্রী মিষ্টি মারিয়া।

জানা গেছে, গত ১২ অক্টোবর উত্তরবঙ্গে একটি নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি। নাটকের চরিত্রের প্রয়োজনে তাকে এক জোড়া কন্টাক্ট লেন্স পরতে হয়। লেন্স খোলার পর থেকে চোখে দেখতে পারছেন না তিনি। এরপর জরুরি ভিত্তিতে ওই রাতেই ট্রেনযোগে জয়পুরহাট থেকে ঢাকায় ফিরেন মিষ্টি মারিয়া। বর্তমানে রাজধানীর ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল এবং মিশন চক্ষু হাসপাতালে তার চোখের চিকিৎসা চলছে।

মিষ্টি মারিয়া বলেন, ‘আমি চোখ খুলতে পারছি না। ডাক্তার জানিয়েছেন, লেন্স খোলার সময় আমার হয়তো চোখের কর্ণিয়ার প্রথম লেয়ার ফেটে গেছে। যে কারণে নাকি দেখতে পারছি না। এসব ক্ষেত্রে নাকি ২৪ ঘন্টার মধ্যে নতুন লেয়ার তৈরি হয়। কিন্তু আমারটা এখনো হয়নি। বিষয়টি নিয়ে খুবই চিন্তিত।'

ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে দোয়া চেয়ে মিষ্টি মারিয়া বলেন, ‘আমি আরও সাতদিন চোখ খুলে তাকাতে পারবো না। জীবনে আমি কখনো কারও উপকার ছাড়া ক্ষতি করিনি। আমার এই কঠিন সময়ে তাই আপনাদের সবার কাছে দোয়া চাই। প্লিজ আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। আমি যেন আপনাদের সবার দোয়ায় আমার দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাই।'

সবশেষ ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আমীরুল ইসলাম পরিচালিত ‘আলোয় ভুবন ভরা’ ও শহীদুল আলম সাচ্চুর ‘ভালোবাসার উত্তাপ’ চলচ্চিত্রে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেন মিষ্টি মারিয়া। একইসময়ে বেশ কিছু নাটকেও কাজ করছিলেন তিনি।