তামিমদের বিদায়, ফাইনালে শান্ত আর রিয়াদের দল

img

ক্রীড়া প্রতিবেদক:

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে বুধবার লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে নাজমুল একাদশের বিপক্ষে বৃষ্টি আইনে ৭ রানে হেরেছে তামিম একাদশ। এই হারের কারণে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে তামিম ইকবালের দল। আর ফাইনাল নিশ্চিত করেছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। আগামী ২৩ অক্টোবর ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে।

শান্তর দল ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থেকে লিগ পর্ব শেষ করেছে। ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রিয়াদের দল। ২ পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে তামিম ইকবালের দল। লিগ পর্বে প্রতিটি দলই চারটি করে ম্যাচ খেলেছে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে এদিন নাজমুল একাদশের দেয়া ১৬৪ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৪০.৪ ওভারে ১৫৬ রানে অলআউট হয়ে যায় তামিম একাদশ। দলের পক্ষে অধিনায়ক তামিম ইকবাল সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন মোহাম্মদ মিথুন।

নাজমুল একাদশের বোলারদের মধ্যে তাসকিন আহমেদ ৪টি, আল-আমিন হোসেন ১টি, আবু জায়েদ ১টি, নাসুম আহমেদ ১টি ও সৌম্য সরকার ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ১৬৫ রানে অলআউট হয়ে যায় শান্তরা। তারা ব্যাট করতে পারে ৩৯.৩ ওভার। বৃষ্টির কারণে ম্যাচের ওভার কমিয়ে ৪১ করা হয়।

দলীয় ২৫ রানে নাজমুল একাদশ তিনটি উইকেট হারায়। ফিরে যান সৌম্য সরকার, পারভেজ হোসেন ইমন ও অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

এরপর মুশফিকুর রহিম ও আফিফ হোসেনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় নাজমুল একাদশ। দুজনে ৯০ রানের জুটি গড়েন। ব্যক্তিগত হাফ সেঞ্চুরি করার পর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। ৫১ রান করে তিনি সাইফউদ্দিনের শিকার হয়ে ফিরে যান। মুশফিকই দলের সেরা রান সংগ্রহকারী।

তারপর আফিফ হোসেনও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ব্যক্তিগত ৪০ রানে মেহেদী হাসানের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান তিনি। পরের ব্যাটসম্যানরা বলার মতো কোনো স্কোর করতে পারেননি। তামিম একাদশের পক্ষে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৮.৩ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ৫টি উইকেট নেন। এছাড়া মেহেদী হাসান ২টি ও মোস্তাফিজুর রহমান ৩টি করে উইকেট শিকার করেন।