ট্রাকচাপায় না ফেরার দেশে তরুণ অভিনেত্রী

img

বিনোদন ডেস্ক:

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল টিভি নাটকের নতুন মুখ অভিনেত্রী আশা চৌধুরী। সোমবার ম্যধরাতে রাজধানীর দারুস সালাম এলাকায় দ্রুত গতির একটি ট্রাকের ধাক্কায় তিনি মারা যান। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। জানা যায়, রাস্তা পার হওয়ার সময় এই দুর্ঘটনার মুখে পড়েন আশা।

গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাট্যনির্মাতা রোমান রুনি। তিনি জানান, সোমবার রাতে শুটিং থেকে বাসায় ফেরার পথে রাজধানীর টেকনিকেল মোড়ে রাস্তা পার হতে গিয়ে একটি ট্রাকের চাপায় তার মাথা থেঁতলে যায়। পরে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে রাখা আছে।

ফেসবুকে আশার ছবি পোস্ট করে অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন লিখেছেন, ‘আমার ২০২১ সালের শুরুর কাজটি ছিল ১ ও ২ তারিখ। যেখানে আশা চৌধুরী নামে এই মেয়েটি অভিনয় করেছেন। তার মানে দু’দিন আগেই কাজ করেছি একসঙ্গে। আজ এক সড়ক দুর্ঘটনায় আশা চিরতরে আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন। তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।’

সর্বশেষ ২ জানুয়ারি নাটক ‘দ্য রিভেঞ্জ’-এ অভিনয় করেছেন আশা। প্রায় চার বছর আগে আশার টেলিভিশন নাটকের অভিনয়ে আসা। অভিনয়কেই সে পেশা হিসেবে বেছে নিতে চেয়েছিলেন। শিল্পী হিসেবে বিটিভির তালিকাভুক্ত হয়েছিলেন।

এই অভিনেত্রী মারা যাওয়ার দুই দিন আগে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন। নাটকে তার সহশিল্পী ছিলেন সালাহউদ্দিন লাভলু এবং আনিসুর রহমান মিলন।

আশা চৌধুরীরা চার বোন। সে ছিল সবার বড়। ঢাকার বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলোজিতে (বিইউবিটি) লতে ৭ সেমিস্টারে পড়াশোনা করতেন। তার গ্রামের বাড়ি পাবনা।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে দারুসসালাম থানার এসআই সোহান আহমেদ বলেন, ‘বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউবিটি) আইন বিভাগের ছাত্রী ছিলেন আশা। লেখাপড়ার পাশাপাশি একটি বেসরকারি বায়িং হাউসে চাকরিও করতেন। এছাড়া তিনি অভিনয় করতেন বলেও তার পরিবার জানিয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘লাশের সুরতহাল রিপোর্ট অনুযায়ী মনে হচ্ছে, ওই তরুণী সড়ক ‍দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।’