২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার আইনে স্বাক্ষর করেছেন পুতিন

img

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক:

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আগামী ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার পথ পোক্ত করতে নতুন একটি বিলে স্বাক্ষর করেছেন। গতকাল সোমবার নতুন এই বিলের অনুমোদন দেওয়ায় আরো দুই মেয়াদে এক যুগের জন্য দেশটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন তিনি।

 

ভয়েস অব আমেরিকার খবরে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকা বিষয়ক বিতর্কিত একটি প্রস্তাবকে আইনে পরিণত করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এটা তাকে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত কার্যত ক্ষমতায় থাকার দ্বার উন্মুক্ত করে দিয়েছে।

প্রস্তাবটি সম্প্রতি সংসদের নিম্ন ও উচ্চকক্ষের দ্বারা অনুমোদিত হয়েছে। এটা এখন গত বছর ভোটারদের ভোটে অনুমোদিত নির্বাচনী আইনের সাংবিধানিক পরিবর্তনের সাথে যুক্ত হয়েছে।

 

বর্তমান নির্বাচনী আইনের অধীনে একজন রাষ্ট্রপতির টানা তৃতীয় বার ছয় বছরের মেয়াদে থাকা নিষিদ্ধ। পুতিন বর্তমানে পরপর দ্বিতীয় বার ছয় বছরের মেয়াদে রয়েছেন।

৬৮ বছর বয়সী রুশ নেতা ভ্লাদিমির পুতিন ২০২০ সালে এই প্রস্তাব উত্থাপন করেন। ১৯৯৯ সাল থেকে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী কিংবা প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

গত বছর সাংবিধানিক সংশোধনী নিয়ে রাশিয়া সরকার ভোটের আয়োজন করেছিল। বর্তমানে দেশটির আইন প্রণেতারা সংবিধানের নতুন সংস্করণের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বিদ্যমান আইন তৈরি করছেন।

২০০০ সাল থেকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ভ্লাদিমির পুতিন। তার বর্তমান মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪ সালে। নতুন বিলে স্বাক্ষর করার মধ্য দিয়ে এখন তিনি ২০৩৬ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার ক্ষমতায় থাকার পথ চূড়ান্ত করলেন।