মৌসুম না এলেও বাজারে চড়া দামে উঠেছে শীতকালিন সবজি

img

নিজস্ব প্রতিবেদক:

মৌসুম না এলেও বাজারে উঠেছে শীতকালিন বেশ কিছু সবজি। এরমধ্যে রয়েছে, টমেটো, শিম, ফুলকপি, গাজরসহ বেশি কিছু সবজি। কিন্তু দাম সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের বাইরে। শুক্রবার রাজধানী শ্যামলীর সমবায় বাজারসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

 

সরেজমিনে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে আমদানি হয়েছে নানান শীতকালীন সবজি। ক্রেতাদের শিম কিনতে কেজি প্রতি গুনতে হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা পর্যন্ত। আবার কোথাও কোথাও ২০০টাকা কেজি দরেও বিক্রি হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রতি পিস ফুলকপি (ছোট) কিনতে লাগছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, গাজর প্রতি কেজি ৮০টাকা ও টমেটো ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা দরে, লাউ প্রতি পিস ৫০ টাকা, শশা প্রতি কেজি ৫০টাকা, কালো বেগুন ৯০ থেকে ১০০ টাকা, ঝিংগা ৬০টাকা, কাকরোল ৫০টাকা, উচ্ছে ৬০টাকা, চিচিংগা ৫০টাকা, পটল ৪০ থেকে ৫০টাকা, ঢেড়শ ৫০টাকা, বরবটি ৮০টাকা, পেঁপে ৩০থেকে ৪০ টাকা, কচুর মুখি ৫০টাকা, লাল গোল আলু ৩০ টাকা, সাদা গোল আলু ২৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। চাল কুমড়া পিস ৪০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া কেজি ৪০ টাকা, পেঁয়াজ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা ও কাঁচকলার হালি ৩০ থেকে ৪০ টাকা। মূলা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা দরে।

 

এদিকে মাছের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের মত এই সপ্তাহেও বাজারে বড় ইলিশ মাছ (দেড় কেজি) প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ১৪০০টাকা দরে। রুই মাছ আকার ভেঁদে কেজি ২৪০ থেকে ৪৫০ টাকা, কাতল মাছ আকার ভেদে ২৫০ থেকে ৪০০ টাকা, পাবদা ৪৫০ টাকা, বেলে ৪০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৬০ টাকা, চিংড়ি ৪৫০ থেকে ৬০০ টাকা, টেংরা ৭০০, পাঙ্গাস মাছ প্রতি কেজি ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

মাংসের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের মত বাজারে প্রতি কেজি খাসির মাংস ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা, গরুর মাংস প্রতিকেজি ৫৮০ থেকে ৬০০ টাকা ও প্রতি কেজি সোনালি (কক) মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৩৫ থেকে ২৪০ টাকায়। লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা ও ব্রয়লার মুরগি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা।