'ত্রিপুরায় দাফন হওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধাদের দেহাবশেষ দেশে আনা হবে'

img

নিজস্ব প্রতিবেদক:

১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদ যেসব বীর মুক্তিযোদ্ধাকে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে দাফন করা হয়েছে, তাদের কবর শনাক্ত করে দেহাবশেষ দেশে ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এরইমধ্যে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

শনিবার রাতে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় শিল্পকলা একাডেমির নাট্যশালায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক ডকু-ড্রামা ‘দুটি যুদ্ধের একটি গল্প’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, 'যুদ্ধের সময় যেসব নিহত শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে দাফন করা হয়েছে, তাদের দেহাবশেষ দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। কবর শনাক্ত ও পরবর্তী কার্যক্রমের বিষয়ে এরইমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। করোনার কারণে এ বিষয়টি নিয়ে কাজ পিছিয়েছে। করোনার সংক্রমণ আরেকটু কমলে আমি নিজে গিয়ে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবো। তারপর মুক্তিযোদ্ধাদের শনাক্ত এবং দেশে ফিরিয়ে আনার কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে।'

এর আগে কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন অবমাননার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, 'কুমিল্লার ঘটনা কী কারণে ঘটেছে, এ ঘটনার পেছনের কারণ খোঁজা হচ্ছে। যারা এ ঘটনায় জড়িত শিগগিরিই তাদের চিহ্নিত করে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।'

অহেতুক ভাঙচুর চালানো থেকে সবাইকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে স্বরাষ্টমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, অপরাধী সবাইকে চিহ্নিত করে সবার সামনে হাজির করা হবে। পবিত্র কোরআন আমরা মুসলমানরা হৃদয়ে ধারণ করি। কোরআনের অবমাননা যেভাবে দেখানো হয়েছে আমি বিশ্বাস করি সেরকম ঘটেনি। এ ঘটনার পর যারা অহেতুক ভাঙচুরে জড়িয়ে পড়ছে তাদের এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার আহ্বানও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।