এশিয়ান আরচারিতে নারী-পুরুষ উভয় ইভেন্টে জোড়া পদক জিতলো বাংলাদেশ

img

ক্রীড়া ডেস্ক:

২২তম এশিয়ান আরচারিতে চ্যাম্পিয়নশিপসে জোড়া পদক পেয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে প্রথম পদক এনে দিয়েছেন নাসরিন আক্তার, বিউটি রায় ও দিয়া। রিকার্ভ মহিলা দলগত বিভাগে তারা ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন। পরে একই পদক জেতেন রিকার্ভ পুরুষ দলগত বিভাগও।

বাংলাদেশ এর আগে বিশ্বকাপে পদক জিতেছে, সরাসরি অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। কিন্তু এশিয়ান আরচারিতে ছিল পদক শূন্য। এবার সেই খরা ঘোচালেন রিকার্ভ মহিলা দলের মেয়েরা। আসরের পঞ্চম দিনে আজ বাংলাদেশকে প্রথম পদক এনে দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করে দিয়ারা।

আর্মি স্টেডিয়ামে এদিন ব্রোঞ্জের লড়াইয়ে ভিয়েতনামকে ৫-৩ ব্যবধানে হারান দিয়া, নাসরিন ও বিউটি। সেমি ফাইনালে শক্তিশালী দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে হেরেছিলেন তারা। এদিকে রিকার্ভ পুরুষ দলগত ইভেন্টে কাজাখাস্তানের খেলোয়াড়দের ৬-২ সেটে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন রোমান সানা, হাকিম আহমেদ রুবেল ও রামকৃষ্ণ সাহা।

পদক জয়ের স্বপ্নপূরণ প্রতিষ্ঠা করে অনেক খুশি তারকা আরচার রোমান সানা। তিনি নিজেদের আত্মবিশ্বাস আর উন্নতির কথা জানিয়ে বলেন, ‘আমরা দিন দিন উন্নতি করছি। আমাদের প্রতিটা খেলোয়াড়দের পরিকল্পনা থাকে একটা পদক অর্জন করা। তবে আমরা হয়তো কোরিয়া বা ভারতের মত শক্তিশালী হতে পারিনি। কোচ মার্টিন ফেডেরিক আসার পর থেকেই আমরা আরো আত্মবিশ্বাসী হয়েছি, কারণ আমরা অনেকগুলো টুর্নামেন্ট খেলছি।’

আসর শুরুর আগে পদকের খরা ঘোচানোর কথা বলেছিলেন সানা। কাজটাও তারা করেছেন দারুণ ভাবেই। তবে আরও বেশি করে ম্যাচ খেলে তাদের লক্ষ্য আন্তর্জাতিক আসরে পদক জেতা।

সানা বলেন, ‘এই বছর আমরা অনেকগুলা টুর্নামেন্ট খেলেছি, এজন্য আমাদের আত্মবিশ্বাসে আগের থেকে উন্নতি হয়েছে। আমি বার বার বলেছি, যত ম্যাচ খেলবেন ততো আত্মবিশ্বাস বাড়বে। ফাইনাল স্টেজে খেলার সময় আমাদের নার্ভাসনেসটা কমে গেছে। এরকম আরো ম্যাচ খেলতে পারলে ভারত, কোরিয়ার মত আত্মবিশ্বাস গড়ে উঠবে এবং আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলা থেকে পদক জিতে আসতে পারব।’