ডিজিটাল সংযোগ স্থাপনসহ ২৯ হাজার কোটি টাকার ১০ প্রকল্প অনুমোদন

img

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় দশটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২৯ হাজার ৩৪৪ কোটি ২৭ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ১১ হাজার ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা, ঋণ থেকে ১৮ হাজার ৯৩২ কোটি ৪ লাখ টাকা এবং বাকি অর্থ সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে খরচ করা হবে। 

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক বৈঠক শুরু হয়। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। 

অন্যদিকে এনইসি সম্মেলন কক্ষে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও সচিবরা উপস্থিত ছিলেন। 

সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানান।

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৫ হাজার ৮৭০ কোটি টাকা ব্যয় বাড়িয়ে মাতারবাড়ি আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ার্ড পাওয়ার প্ল্যান্ট নির্মাণ প্রকল্পের ১ম সংশোধনী অনুমোদন দিয়েছে একনেক। এতে বর্তমানে প্রকল্পটির ব্যয় দাঁড়াল ৫১ হাজার ৮৫৪ কোটি টাকা। 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দিয়ে বলেছেন, মাতারবাড়ির প্রকল্পগুলো একটি কর্তৃপক্ষের আওতায় নিয়ে আসতে। এজন্য প্রয়োজনে শুধু মাতারবাড়ির জন্য আলাদা কর্তৃপক্ষ করা লাগলেও করতে হবে।

অন্যদিকে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আজকের বৈঠকে ৩ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা ব্যয়ে হাওর এলাকায় উড়াল সড়ক ও ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পটির মাধ্যমে পাশাপাশি দুটি জেলার যোগাযোগ স্থাপিত হবে। নেত্রকোনা ও সুনামগঞ্জ দুটি পাশাপাশি জেলা হলেও বছরের বেশিরভাগ সময়ই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকত। তবে এই প্রকল্পটির মাধ্যমে এ দুই জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপিত হলো।

একনেকে অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হচ্ছে-

১. ‘অবকাঠামোগত পুনর্গঠনের মাধ্যমে বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির আধুনিকীকরণ’ প্রকল্প।
২. ‘আরিচা (বরঙ্গাইল)-ঘিওর-দৌলতপুর-নাগরপুর-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহাসড়ক (আর-৫০৬) যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ’ প্রকল্প।
৩. ‘নড়াইল শহরাংশের জাতীয় মহাসড়ক (এন-৮০৬) প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন’ প্রকল্প।
৪. ‘ইস্টাবলিশিং ডিজিটাল কানেকটিভিজ (ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন)’ প্রকল্প।
৫. ‘রুরাল ট্রান্সপোর্ট ইম্প্রুভমেন্ট প্রজেক্ট-২ (আরটিআইপি-২) (তৃতীয় সংশোধিত)’ প্রকল্প।
৬. ‘সিলেট বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন’ (১ম সংশোধিত) প্রকল্প।
৭. ‘হাওর এলাকায় উড়াল সড়ক ও ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন’ প্রকল্প।
৮. ‘খুলনা জেলার পোল্ডার নং-১৪/১ পুনর্বাসন’ প্রকল্প।
৯. ‘দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা সম্প্রসারণ (কম্পোনেন্ট-১, বাপাউবো অংশ)’ প্রকল্প।
১০. ‘মাতারবাড়ি ২*৬০০ মেগাওয়াট আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ার্ড পাওয়ার প্রজেক্ট (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প।