আগামীকাল এসএসসির ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ

img

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) প্রকাশ করা হবে।  প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়ার এই ফল প্রকাশের চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। 

এবার এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন নেয়া হবে অনলাইনে। আবেদন শুরু হবে ৫ জানুয়ারি থেকে। ২ মার্চ থেকে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরুর কথা রয়েছে।

যেভাবে ওয়েবসাইট থেকে ফল জানবেন
শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইট গিয়ে রোল নাম্বার, পরীক্ষার নাম এবং বোর্ড সিলেক্ট করে ফলাফল জানা যাবে। প্রথমে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে পরীক্ষার ধরন নির্বাচন করুন। এরপর পরীক্ষার বছর, বোর্ড, রোল, রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিন। ওয়েব নিরাপত্তার জন্য একটি অংক সেখানে দেওয়া থাকবে সেটির যোগ ফল লিখে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলেই আপনি ফল পেয়ে যাবেন। তবে ফল জানার জন্য প্রতি বছর অতিরিক্ত ট্রাফিকের কারণে সার্ভার সংক্রান্ত সমস্যা হয়। তাই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে রেজাল্ট জানতে কিছুটা বেশি সময় লাগতে পারে। 

এক্ষেত্রে প্রতিটি বোর্ডেরও নিজস্ব ওয়েবসাইট রয়েছে। সেখান থেকেও ফলাফল জানা যাবে।

এসএমএসে ফল জানবেন যেভাবে 
মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ফল পাওয়ার জন্য SSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। উদাহরণস্বরূপ: SSC DHA 123456 2021 পাঠিয়ে দিন ১৬২২২ নম্বরে।  মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের জন্য Dakhil লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে আবার স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে পাসের সাল লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। উদাহরণস্বরূপ: Dakhil MAD 123456 2021 পাঠিয়ে দিন ১৬২২২ নম্বরে।   

জানা যায়, এ বছর দেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২২ লাখ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। গত ১৪ নভেম্বর সকালে বিজ্ঞান বিভাগের পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ের মাধ্যমে পরীক্ষা শুরু হয়। গত বছরের তুলনায় এ বছর ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৩৪ জন বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছে। এ অনুযায়ী বৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এ ছাড়া মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বেড়েছে ১৫১টি এবং কেন্দ্র বেড়েছে ১৬৭টি। 

এরআগে গত ১৪ নভেম্বর থেকে সারাদেশে শুরু হয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। সকাল ১০টায় শুরু হয়ে পরীক্ষা শেষ হয় সাড়ে ১১টায়। এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন।