ষড়যন্ত্র হলে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে লড়বে তৌহিদী জনতা

img

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্স (স্নাতকোত্তর) ডিগ্রির সমমান  দেওয়ায় কোনো ধরনের ষড়যন্ত্র হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের পক্ষে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছেন কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের (বেফাক) নেতারা।

বৃহস্পতিবার  বাদ আছর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে আয়োজিত শোকরানা মিছিলপূর্ব সমাবেশে এ কথা বলেন তারা। বেফাক নেতারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা. মন্ত্রিপরিষদ, স্পিকার, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব, সংসদ সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি শুকরিয়া জানান।

দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের সমমান দিয়ে গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদে বিল পাস হয়।

শোকরানা মিছিলপূর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি আশরাফ আলী বলেন, ‘কওমী মাদরাসা কোনো সন্ত্রাসী তৈরি করে না, দুর্নীতিবাজ তৈরি করে না। কওমী মাদরাসা তৈরি করে আদর্শ সুনাগরিক, মোহাদ্দেস, মোফাসসের, ইসলামী চিন্তাবিদ। দাওরায়ে হাদিস পাস করে মানুষ খতিব হন, ইমাম হন।তারা জাতিকে সঠিক পথের নির্দেশনা দেন।’

দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের সমমান স্বীকৃতির দাবিতে আন্দোলন অনেক দিনের পুরোনো। বেফাকের মহাসচিব মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ‘এর আগে অনেক সরকার গেছে, কিন্তু দাওরায়ে হাদিসের স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি। বর্তমান সরকার সেই স্বীকৃতি দিয়েছে।’