ব্যথামুক্ত প্রসব কি মা ও শিশুর জন্য নিরাপদ?

img

ডেক্স প্রতিবেদক:

রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ব্যথামুক্ত প্রসব করানো হচ্ছে। তবে এই ব্যথামুক্ত প্রসব কী মায়েদের জন্য নিরাপদ। এছাড়া মা ও সন্তানের কোনো ঝুঁকি আছে কি? এ নিয়ে প্রশ্নের শেষ নয়।

ব্যথামুক্ত নরমাল ভ্যাজাইনাল ডেলিভারি

প্রাকৃতিকভাবে সন্তান প্রসবের সময় যে সকল নার্ভসমূহ ব্যথার অনুভূতি হয় তা ব্যথানাশক ওষুধ দিয়ে অবশ করে দেওয়া হয়।তাই মায়ের খুব একটা ব্যথা অনুভূত হয় না। এছাড়া এ সময় হাঁটাচলা করতে পারে।এই প্রক্রিয়াটির নাম এপিডুরাল এনালজেসিয়া। ব্যথামুক্ত প্রসব সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানিয়েছেন ডেলটা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক ডা. নুসরাত জাহান এমবিবিএস,এফসিপিএস(অবস-গাইনী)।

ডা. নুসরাত জাহান বলেন,স্বাভাবিক নিয়মে প্রসবের সময় জরায়ুর মুখ যখন চার থেকে পাঁচ সেন্টিমিটার খুলে যাবে এবং রোগী যদি ব্যথা সহ্য করতে না পারে তখন অবশ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এ সময় মেরুদণ্ডের ভেতরে একটি প্লাস্টিকের ক্যাথেটার প্রবেশ করানো কিছুক্ষণ পর স্পাইনাল কর্ডের এপিডুরাল স্পেসে ব্যথানাশক ওষুধ দেয়া হয়।

ব্যথামুক্ত প্রসবের কিছু সুবিধা রয়েছে উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, প্রক্রিয়ার যেসব রোগীরা প্রসব ব্যথা সহ্য করতে পারতো না। তার এখন প্রসব ব্যথা সহ্য করতে পারবে। এতে মা ও শিশু সিজারজনিত জটিলতা থেকে মা মুক্ত থাকবে। ব্যথামুক্ত প্রসব নিরাপদ উল্লেখ্য করে এই চিকিৎসক বলেন, ব্যথামুক্ত প্রসবের যে প্রক্রিয়া ডাক্তাররা মায়েদের কষ্ট কমাতে করে থাকেন। তাতে তেমন কোনো সুবিধা নেই। এই প্রক্রিয়া মা ও শিশুর জন্য নিরাপদ।

এই প্রক্রিয়ায় কোনো সমস্যা রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই প্রক্রিয়ায় মা যেহেতু পুশ করতে পারেন না তাই সময় বেশি লাগে। এছাড়া প্রক্রিয়াটি ব্যয়বহুল বটে। তবে এনালজেসিয়ার কারণে নবজাতকের শ্বাসকষ্টের কোন আশংকা নেই। গাইনীজনিত যে কোনো সমস্যায় পরামর্শের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ডা. নুসরাত জাহানের সঙ্গে।যোগাযোগ:০১৯২৪০৮৭৮৩১।