বিশ্বকাপের শীর্ষ পাঁচে মোস্তাফিজ

img

ক্রীড়া ডেস্ক:

বিশ্বকাপ শুরুর আগে ছিলেন অফ ফর্মে। পারবেন কি গত বিশ্বকাপের মতো কি এবারো বোলিংয়ে ঝড় তুলতে ? সব শঙ্কা ভুল প্রমাণ করে আগের চেয়ে আরো বেশি ধারালো হয়ে এবারের বিশ্বকাপে জ্বলে উঠেছেন এই পেসার। বলছি অস্ট্রেলিয়ান পেসার মিশেল স্টার্ক। 

গতবারের বিশ্বকাপে যেখানে শেষ করছিলেন এবার ঠিক সেখান থেকে শুরু করলেন। গতবারের মতো এবারো টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকায় শীর্ষে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করেছেন স্টার্ক। তবে এবার শেষ করলেন রেকর্ড গড়ে। ভেঙেছেন এক আসরে তারই স্বদেশি কিংবদন্তী বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রার নেয়া ২৬ উইকেটের কীর্তি। ওই জায়গায় চলতি বিশ্বকাপে ১০ ম্যাচে ২৭ উইকেট নিয়ে নিজের নাম লিখিয়েছেন এই পেসার।

এবারের আসরে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের লকি ফার্গুসন। বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে প্রথমবার এসেই বাজিমাত করেছেন এই কিউই পেসার। ৯ ম্যাচে ২১ উইকেট নিয়ে দলকে ফাইনালে তুলতে অপরিসীম ভূমিকা রাখেন তিনি।

তালিকার তৃতীয় স্থানে আছেন ইংল্যান্ডের জোফরা আর্চার। যিনি ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপে প্রথমে দলেই ছিলেন না। অনেক জল্পনা-কল্পনার পর তাকে দলে নিতে বাধ্য হয়ে ইংলিশরা। মাঠে নেমেই আর্চার দেখিয়ে দেন তাকে দলে না নিলে কি ভুলটাই না করত থ্রি লায়ন্সরা। এমনকি বিশ্বকাপটাও হাতছাড়া হয়ে যেতে পারত তাদের। কেননা ১১টি ম্যাচে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২০টি উইকেট নিয়েছেন আর্চার।

এরপরের নামটা দেখে যে কোনো বাংলাদেশির গর্ব হতে পারে। ৮ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়ে তালিকার চার নম্বরে অবস্থান করছেন কাটার মাস্টার খ্যাত মোস্তাফিজুর রহমান। তবে তা দেখে আফসোস করা ছাড়া আর কিছুই নেই, আজ যদি নকআউট পর্বে খেলতে পারত বাংলাদেশ, তাহলে হয়তো এই নামটা স্টার্কের পাশে বিদ্যমান থাকত।

তালিকার পাঁচ নম্বরে আছেন ভারতের জাসপ্রিত বুমরাহ। ৮ ম্যাচে ১৮ উইকেট নিয়ে দলকে সেমিফাইনালে তোলার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভারত ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হওয়ায় আর কোনো ম্যাচ না খেলেই বিদায় নিতে হয় এই বোলারকে।

বিশ্বকাপের সেরা ৫ বোলার

খেলোয়াড় ম্যাচ ওভার রান উইকেট সেরা গড়
মিচেল স্টার্ক ১০ ৯২.২ ৫০২ ২৭ ৫/২৬ ১৮.৫৯
লকি ফার্গুসন ৮৩.৪ ৪০৯ ২১ ৪/৩৭ ১৯.৪৭
জোফরা আর্চার ১১ ১০০.৫ ৪৬১ ২০ ৩/২৭ ২৩.০৫
মোস্তাফিজুর রহমান ৭২.১ ৪৮৪ ২০ ৫/৫৯ ২৪.২০
জাসপ্রিত বুমরাহ ৮৪.০ ৩৭১ ১৮ ৪/৫৫ ২০.৬১