ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের সাবেক স্পিকারের আত্মহত্যা

img

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের বিধানসভার সাবেক স্পিকার কোডেলা শিবা প্রসাদ রাও আত্মহত্যা করেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।  রাজ্যের বিরোধী দল তেলুগু দেশমের অন্যতম বর্ষীয়ান নেতা ছিলেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানাই প্রাক্তন স্পিকার কোডেলা শিবা প্রসাদ রাও তাঁর হায়দারাবাদের বাসভবনে আত্মহত্যা করেছেন। প্রদেশের বাসবাতারকম হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। প্রসঙ্গত, অভিনেতা ও রাজনীতিবিদ বালকৃষ্ণর সঙ্গে এই হাসপাতাল তৈরি করেছিলেন তিনি। 

২০১৪ সালে অন্ধ্রপ্রদেশের ভেঙে তেলেঙ্গানা তৈরি হলে রাও স্পিকার হন। তিনি ছয় বার বিধানসভার সদস্য ছিলেন। এর মধ্যে নারসারাওপেট থেকে পাঁচবার এবং সাত্তেনাপল্লি থেকে একবার নির্বাচিত হয়েছিলেন।

রাও কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। গুন্টুর মেডিক্যাল কলেজ থেকে স্নাতক হওয়ার পর তিনি চিকিৎসক হিসেবে পেশাজীবন শুরু করেন। ১৯৮৩ সালে তেলেগু দেশম পার্টিতে তিনি যোগদান করেন।

বর্ষীয়ান নেতার আত্মহত্যার ঘটনায় বিজেপি শোক প্রকাশ করেছেন। দলটির মুখ্য মুখপাত্র কে কৃষ্ণ সাগর রাও একটি বিবৃতিতে জানান,‘প্রাক্তন মন্ত্রী, অন্ধপ্রদেশের প্রাক্তন স্পিকার শ্রী কোডেলা শিভা প্রসাদ রাও আত্মহত্যা করেছেন জেনে অত্যন্ত দুঃখ পেয়েছি। বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের দুর্ভাগ্যজনক আত্মহত্যার সংবাদে আমি সহৃদয় সান্ত্বনা জানাই। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি।