একতরফাভাবে ভারতের সঙ্গে ডাক যোগাযোগ বন্ধ করল পাকিস্তান

img

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক:

জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের সঙ্গে ডাক যোগাযোগ বন্ধ করেছে পাকিস্তান। একতরফাভাবে ডাক যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়ায় দেশটির কড়া সমালোচনা করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় যোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবীশঙ্কর প্রসাদ। ডাক পরিষেবা বন্ধের একতরফা সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক নিয়মের লঙ্ঘন বলে দাবি ভারতের।  

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানায়, সোমবার দিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে দেশটির কেন্দ্রীয় যোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী বলেন, ‘পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্ত সরাসরি আন্তর্জাতিক ডাক পরিষেবার নিয়মের লঙ্ঘন। পাকিস্তান কোনো নোটিশ বা অবগত না করেই ডাক বিভাগের ভারতে চিঠি পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছে।’

এর আগে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করে ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্তের জেরে ভারতের সঙ্গে সব বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছিল পাকিস্তান। চির প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিবেশীর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বন্ধের পাশাপাশি কূটনৈতিক সম্পর্ক সীমিত করার ঘোষণাও দিয়েছিল দেশটি।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির এক বৈঠকে ভারতের সঙ্গে সমস্ত দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাতিল, কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও কমিয়ে আনা, দ্বিপাক্ষিক সব বিষয়ের পুনমূর্ল্যায়ন, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যু তোলা, ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে উদযাপন, ১৪ আগস্ট পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে পাক অধিকৃত কাশ্মীরিদের নিয়ে স্বাধীনতা দিবস পালন, দিল্লি থেকে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে দেশে নিয়ে আসা এবং ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূতকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হয়।

প্রায় দুই মাসের অধিক সময় ধরে জম্মু-কাশ্মীরে কারফিউ জারি রয়েছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের দাবি কাশ্মীরের নাগরিকদের ওপর ভারতীয় সেনাবাহিনী ব্যাপক নির্যাতন করছে। কিন্তু ভারত বরাবরই নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।