প্রতিটি গ্রামে শহরের সুবিধা পাবে জনগণ:প্রধানমন্ত্রী

img

গাজীপুর প্রতিনিধি:

শহরে সাধারণ মানুষ যেমন নাগরিক সুবিধা পায়, গ্রামের মানুষও তেমন নাগরিক সুবিধা পাবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুরের সফিপুরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৪০-তম জাতীয় সমাবেশ ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। এই স্বাধীনতার সুফল বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ পাবে। শহরে সাধারণ মানুষ যেমন নাগরিক সুবিধা পায়, গ্রামের মানুষও সেই নাগরিক সুবিধা পাবে। প্রতিটি গ্রাম হবে শহরের সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন নগর।’

পাশাপাশি একটি বাড়ি, একটি খামার প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে সরকার দারিদ্র্য বিমোচনের কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।

সমাবেশে দেশের উন্নয়নে অগ্রযাত্রায় আনসার ভিডিপির ভূমিকার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা। বলেন, আনসার ও ভিডিপি সদস্যরা দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সহযোগিতার পাশাপাশি সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ নির্মূলেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নে প্রতিটি বাহিনীকে যুগপোযোগী করে গড়ে তোলা হচ্ছে।

এ সময় জননিরাপত্তা রক্ষায় অশুভ শক্তিকে পরাজিত করতে সততা ও সাহসিকতার সঙ্গে আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের কাজ করার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান।

এর আগে সকাল ১০টার পর ঢাকার তেজগাঁও বিমানবন্দর থে‌কে হেলিকপ্টারযোগে সফিপুরের উদ্দেশে রওনা হন প্রধানমন্ত্রী।

পরে সমাবেশে কুচকাওয়াজ উপভোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া, বিভিন্ন সময় নিজ বাহিনীতে অবদান রাখায় সদস্যদের ১৪৩ জনকে আনসার পদকে সম্মানিত করেন প্রধানমন্ত্রী।

১৯৮০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ আনসার বাহিনী গঠন করা হয়। এরপর থেকে প্রতি বছর এই দিনে বাহিনীটির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।