সুইজারল্যান্ডকে হারিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে ব্রাজিল

img

ক্রীড়া প্রতিবেদক:

কাতার বিশ্বকাপের ‌জি-গ্রুপের ম্যাচে ক্যাসেমিরোর করা একমাত্র গোলে সুইজারল্যান্ডকে হারাল শক্তিশালী ব্রাজিল। টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নেওয়ার মাধ্যমে আগে-ভাগেই রাউন্ড অব সিক্সটিন নিশ্চিত করল পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

এ জয়ের ফলে ২ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই অবস্থান করছে ব্রাজিল। সমান ম্যাচে তিন পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুই নম্বরে অবস্থান সুইজারল্যান্ডের। আর ১ করে পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে টেবিলের তৃতীয় ও চতুর্থ নম্বরে অবস্থান করছে ক্যামেরুন ও সার্বিয়া। শেষ ম্যাচে ক্যামেরুনের কাছে হারলেও সমস্যা নেই তিতের শিষ্যদের।

পুরো ম্যাচে বল দখল ও আক্রমণে আধিপত্য ছিল ফিফার নাম্বার ওয়ান দল ব্রাজিলের। পুরো সময়ের ৫৩ শতাংশ সময় নিজেদের কাছে বল রাখতে সক্ষম হয় ব্রাজিল। আর সুইজারল্যান্ডের গোলবার বরাবর শট নিতে পেরেছে মোট পাঁচটি। এর মধ্যে গোল হয়েছে কেবল একটি।

অন্যদিকে পুরো সময়ে কেবল ৪৭ শতাংশ সময় নিজেদের নিয়ন্ত্রণে বল রাখতে সক্ষম হয় সুইজারল্যান্ডের ফুটবলাররা। বল দখলে ব্রাজিলের সমানতালে খেলতে থাকলেও আক্রমণের ধার ছিল না ইউরোপের এই দলটির। প্রতিপক্ষের গোলবার বরাবর শট নিতে পারেনি একটিও।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকা ব্রাজিলের গোলের প্রথম সুযোগটি পেয়েছিল ম্যাচের ২৭তম মিনিটে। কিন্তু রাফিনহার ক্রসে উড়ে আসা বলে ভিনিসিয়াসের নেয়া ডান পায়ের শট রুখে দেন সুইস গোলকিপার। ৩১তম মিনিটে এবার নিজেই শট নেন রাফিনহা। কিন্তু দূরপাল্লার শট সহজের তালুবন্দি করেন ইয়ান সোমের। এরপর বলার মতো সুযোগ পায়নি কোনো দলই। ফলে প্রথমার্ধ শেষ হয়েছে গোলশূন্যতেই।

কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পেতে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই একের পর এক অতর্কিত আক্রমণ চালাতে থাকে ব্রাজিল। সেই সুবাদে ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে গোল পেয়েই গিয়েছিল নেইমারবিহীন দলটি। কিন্তু ভিনিসিয়াসের দেয়া গোলটি ভারের মাধ্যমে বাতিল করে দেন রেফারি।

অতপর ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে খেলতে নামা রদ্রিগোর দেয়া পাসে ডি-বক্সের বামপ্রান্ত থেকে ক্যাসেমিরোর নেয়া ডান পায়ের শট সুইজারল্যান্ডের জালে জড়ালে এগিয়ে যায় সেলেসাওরা। এরপর শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হলে ১-০ গোল ব্যবধানেই জয় নিশ্চিত হয় থিয়াগো সিলভা বাহিনীর।

ব্রাজিল একাদশ (ফরমেশন ৩-৪-২-১)

অ্যালিসন বেকার (গোলরক্ষক), এদের মিলিতাও, থিয়াগো সিলভা, মার্কুইনহস, অ্যালেক্স সান্দ্রো, কাসিমিরো, ফ্রেড, পাকোয়েতা, রাফিনহা, রিচার্লিসন, ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

কোচ: তিতে

সুইজারল্যান্ড একাদশ (৪-২-৩-১)

ইয়ান সমার (গোলরক্ষক), উইদমার, আকানজি, এলভেদি, রদ্রিগেজ, জাকা, ফ্রেইলর, রেইডার, শো, ভারগাস, এমবোলু।

কোচ: মুরাত ইয়াকিন